নীলফামারীতে আ’লীগ চার বিদ্রোহী লড়াইয়ে নেমেছেন ৬ উপজেলায় প্রার্থী ৬৫ জন

0
225

ডেস্ক রিপোর্ট: ১০ই মার্চ নীলফামারীর ৬ উপজেলায় ভোট গ্রহন হবে। এসব উপজেলায় চেয়ারম্যান, পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে লড়াইয়ে নেমেছেন ৬৫ জন। তাদের মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ১৮ জন। পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২৬ জন। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২১ জন। আর বিদ্রোহী প্রার্থী হলেন ৪ জন।
নীলফামারী সদর উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী হলেন ২ জন।
মো:আবু ্সাঈদ মাহমুদ আওয়ামীলীগ (নৌকা প্রতীক),মো: সাদিক হোসেন নয়ন স্বতন্ত্র (আনারস প্রতীক)
সদর উপজেলা পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী হলেন ৫ জন।
মো:মিজানুর রহমান,দীপক চক্রবর্তী, আতাউর রহমান বাবু, রফিকুল ইসলাম, শাহাজামাল মিঠু।
সদর উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী ৩ জন।
মোছা:আরিফা সুলতানা লাভলী, স্বান্তনা চক্রবর্তী, সাথী আক্তার।

ডোমার উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী হলেন ৩ জন।
মো:তোফায়েল আহমেদ আওয়ামীলীগ(নৌকা প্রতীক), আব্দুর রাজ্জাক বসুনিয়া আওয়ামীলীগ বিদ্রোহী (আনারস প্রতীক), বীরমুক্তিযোদ্ধা মো:নুরননবী স্বতন্ত্র (মটরসাইকেল প্রতীক ।
ডোমার উপজেলা পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী ৩ জন।
মো: আব্দুল মালেক, রনজিত কুমার রায়, শাহাজান সিরাজ স্বপন।
ডোমার উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী ৩ জন।
মোছা: রওশন কানিচ, সন্ধ্যা রাণী রায়, দীপা রাণী রায়।

ডিমলা উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী হলেন ৪ জন।
বীরমুক্তিযোদ্ধা তবিবুল ইসলাম আওয়ামীলীগ(নৌকা প্রতীক), মোশারফ হোসেন মিঠু (লাঙ্গল প্রতীক),সোহেল হোসেন স্বতন্ত্র (হাতুরী প্রতীক), আব্দুর রহমান (গাভী প্রতীক)।
ডিমলা উপজেলা পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী ২ জন।
নিরেন্দ্র নাথ রায় (টিউবঅয়েল প্রতীক), মো:মোফাখ্খারুল ইসলাম পেলব(গাভী প্রতীক)।
ডিমলা উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী ৩ জন।
মোছা: তাজলী খাতুন, জাহানারা বেগম, আয়শা সিদ্দিকা।

জলঢাকা উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী হলেন ২ জন।
আনছার আলী মিন্টু আওয়ামীলীগ (নৌকা প্রতীক), আব্দুল ওয়াহেদ বাহাদুর আওয়ামীলীগ বিদ্রোহী (চিংরী মাছ প্রতীক)।
জলঢাকা পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী ৪ জন।
শাহিনুর রহমান, মশিউর রহমান বাবু, অধ্যক্ষ মঞ্জুরুল ইসলাম মঞ্জু, গোলাম পাশা এলিচ।
জলঢাকা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী ২ জন।
মনোয়ারা বেগম, রিনা আমজাত।

সৈয়দপুর উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী হলেন ৩ জন।
মো:মকছেদুল মোমিন আওয়ামীলীগ(নৌকা প্রতীক), জয়নাল আবেদীন জাতীয় পার্টি (লাঙ্গল প্রতীক), রুহুল আলম মাষ্টার কমিনিষ্ট পার্টি (হাতুরী প্রতীক)।
সৈয়দপুর পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী ৪ জন।
আজমল হোসেন সরকার, জাহাঙ্গীর হোসেন, সুরত আলী, মনোয়ার হোসেন।
সৈয়দপুর মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী ৩ জন।
সানজিদা আক্তার লাকী, হাসিনা বেগম, রওনক জাহান রেনু।

কিশোরগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী হলেন ৬ জন।
জাকির হোসেন বাবুল আওয়ামীলীগ(নৌকা প্রতীক),শাহমোহাম্মদ আবুল কালাম বারী পাইলট আওয়ামীলীগ বিদ্রোহী (আনারস প্রতীক),রশিদুল ইসলাম জাতীয় পার্টি(লাঙ্গল প্রতীক),আনম রুহুল আলম(দোয়াত কলম),রশিদুল ইসলাম রশিদ(ঘোড়া প্রতীক),বিপ্লব কুমার সরকার বিপু আওয়ামীলীগ বিদ্রোহী (মটরসাইকেল প্রতীক)
কিশোরগঞ্জ পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী ৮ জন।
মাওলানা ইদ্রিস আলী,বাদশা আলমগীর, স্বপন চন্দ্র রায়, ভুবন চন্দ্র মোহন্ত, রহিদুল ইসলাম, হাফিজুল ইসলাম, রবিউল ইসলাম বাবু, বরকত-ই-খুদা।
কিশোরগঞ্জ মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী ৭ জন।
বেগম লাইলী কাদের, নাছিমা চৌধুরী, মকলেজা বেগম, রোকসানা পারভীন, শাপলা বেগম, শিরিনা বেগম, শ্রী মতি শিল্পী রাণী রায়।

আওয়ামীলীগ বিদ্রোহী প্রার্থী হলেন ৪ জন।
ডোমার উপজেলায় ১ জন। আব্দুর রাজ্জাক বসুনিয়া (আনারস প্রতীক)।
জলঢাকা উপজেলায় ১ জন। আব্দুল ওয়াহেদ বাহাদুর (চিংরী মাছ প্রতীক)।
কিশোরগঞ্জ উপজেলায় ২ জন। শাহমোহাম্মদ আবুল কালাম বারী পাইলট (আনারস প্রতীক), বিপ্লব কুমার সরকার বিপু (মটরসাইকেল প্রতীক)।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here