নীলফামারী সদর উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে জমেছে নির্বাচন আনারসের গনসংযোগ

0
143
 নীলফামারী প্রতিনিধিঃ আসন্ন পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রথম ধাপে নীলফামারী জেলার ছয় উপজেলায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১০ মার্চ।  প্রথম ধাপের নির্বাচনে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন ছিলো গত ১৯ ফেব্রুয়ারী মঙ্গলবার । ঐ দিন দুপুরে নীলফামারী সদর উপজেলার চেয়ারম্যান প্রার্থী ফয়েজ উদ্দিন তার মনোনয়নপত্রটি প্রত্যাহার করে নেন। অপর আর এক প্রার্থী সাবেক ছাত্রনেতা ও বিশ্বস্ত রাজনৈতিক সহকর্মী সাদিক হোসেন নয়ন বাছাই-যাছাইয়ের দিন তার মনোনয়নপত্রটি বাতিল করে দেন দায়িত্বপ্রাপ্ত রিটার্নিং কর্মকর্তা। পরে জেলা প্রশাসকের আদালতে আপিল করেন তিনি । আপিল শুনানির দিনেও তার মনোনয়নপত্রটির নামঞ্জুর করেন জেলা প্রশাসক বেগম নাজিয়া শিরিন। মনোনয়নপত্রটি নামঞ্জুর হলে উচ্চ আদালতে রিট পিটিশন মামলা দায়ের করেন তিনি ।
গত ২০ ফেব্রুয়ারী বুধবার প্রতিক বরাদ্দ কালে সদর উপজেলার চেয়ারম্যান পদে প্রতিদন্দি প্রার্থী না থাকায় আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহিদ মাহমুদ কে বিজয় ঘোষণা করেন। এদিকে সাদিক হোসেন নয়নের হাইকোর্টের রিট পিটিশন দায়ের করতে বিলম্বিত হয় । দায়েরকৃত রিট পটিশন মামলার রায়ের কপি রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে প্রেরন করেন। এবং আনারস প্রতিক নিয়ে নির্বাচনী প্রচারনা চালাতে ব্যস্ত সময় পার করছেন সাবেক এই ছাত্রনেতা । রবিবার ০৩ মার্চ দুপুরে পৌর মার্কেট সংলগ্ন নিজেস্ব ব্যবসা প্রতিষ্টান থেকে সমর্থকদের নিয়ে নির্বাচনী প্রচারনা চালাতে দেখা যায় । এ সময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, হার-জিত উপরওয়ালার কাছে। আমি এই নির্বাচনে জনগণের ভোটাদ্বিকার ফিরিয়ে দিতে পেরেছি, এটাই আমার প্রথম জয় । ইনশাল্লাহ আমি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে জনগনের ন্যায্য পাওনা এবং তাদের যেকোন দাবী পুরন করার চেষ্টা করবো। আপনারা দেখছেন, নির্বাচনের বেশি সময় হাতে নেই। তারপরও প্রত্যেকটি মানুষের কাছে আমি যাবো, তাদেরকে বলবো আপনারা ভোট দিতে ভোট কেন্দ্রে যাবেন। আপনাদের পছন্দমত প্রার্থীকে বেছে নিয়েই ভোট দিবেন। আপনাদের ভোটেই পারে আপনাদের ভাগ্য খুলতে দেরিতে হলেও  জোরেসোরে নির্বাচনী প্রচারনা চালাচ্ছেন ছাত্রনেতা সাদিক হোসেন নয়ন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here