‘করোনার অপর নাম ট্রাম্প ভাইরাস’

যুক্তরাষ্ট্রের হাউজ অব রিপ্রেজেন্টেটিভসের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি করোনাকে বললেন ‘ট্রাম্প ভাইরাস’।  করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় চরম ব্যর্থতায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কড়া সমালোচনা করে মঙ্গলবার( ২১ জুলাই) সন্ধ্যায় তিনি এমন মন্তব্য করেন। গণমাধ্যমে বক্তব্য রাখতে গিয়ে স্পিকার পেলোসি বলেন করোনা মহামারি পরিস্থিতি ভালো হওয়ার থেকে বরং আরও খারাপ হয়েছে ট্রাম্পের ব্যর্থতায়। এটি এখন স্পষ্ট ‘ট্রাম্প ভাইরাস’।

মঙ্গলবার দেশটির করোনা পরিস্থিতি নিয়ে ব্রিফিং করেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।কয়েকদিন বন্ধ থাকার পর আবারও নিয়মিত ব্রিফিং শুরু করেন ট্রাম্প।তবে এবারের ব্রিফিংয়ে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব অ্যালার্জি অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেসের প্রধান ডা. ফাউসিকে।ট্রাম্পের ব্রিফিং শেষে করোনাভাইরাসকে ‘ট্রাম্প ভাইরাস’ নামে আখ্যা দেন শীর্ষ ডেমোক্রেট নেত্রী স্পিকার পেলোসি। মহামারী পরিস্থিতি ভাল হওয়ার আগে আরও খারাপের দিকে যেতে পারে, ট্রাম্পের এমন বক্তব্যের পর পেলোসি এই প্রতিক্রিয়া জানান।

করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় মার্কিনীদের ট্রাম্প মাস্ক পরতে আহ্বান জানিয়েছিলেন। যদিও শুরু থেকে তিনি মাস্ক পরাকে গুরুত্ব দিতে চাননি। মাস্ক পরা নিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্টের এমন নীতির কঠোর সমালোচনা করেন হাউজ স্পিকার পেলোসি। তিনি বলেন, মাস্ক পরার আহ্বানের মধ্যে দিয়ে প্রেসিডেন্ট এতদিন যে ভুলগুলো করেছেন সেগুলোর স্বীকৃতি দিলেন। তিনি নিজেই এখন মাস্ক পরছেন। এর ফলে স্বীকৃতি পেল যে মাস্ক পরাতে কোনো ভাঁওতাবাজি নেই।

এর আগে চীনের সমালোচনা করে করোনাভাইরাসকে ‘চীনা ভাইরাস’ নামে আখ্যা দিয়েছিলেন ট্রাম্প। এদিকে বিশ্বজুড়ে করোনা পরিস্থিতির সবচেয়ে বেশী ক্ষতিগ্রস্ত  যুক্তরাষ্ট্র। আক্রান্ত ও মৃতের তালিকায় শীর্ষে রয়েছে দেশটি।

11320cookie-check‘করোনার অপর নাম ট্রাম্প ভাইরাস’

Author: Faruk

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *