হেলমেট না পরায় বাইকের চাবি কপালে ঢুকিয়ে দিলো ভারতের পুলিশ

হেলমেট না পরায় এক বাইক আরোহীর কপালে তার মোটরসাইকেলের চাবি ঢুকিয়ে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে তিন পুলিশকর্মীর বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের উত্তরাখণ্ডে।

আনন্দবাজার পত্রিকা জানায়, বন্ধুকে নিয়ে বাইকে করে যাচ্ছিলেন ওই যুবক। তাদের কারও মাথাতেই হেলমেট ছিলো না। রাস্তায় তখন পুলিশের একটি টহল ভ্যান দাঁড়িয়েছিল।

প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি, হেলমেট না পরার জন্য ওই দুই যুবককে দাঁড় করায় পুলিশ। তার পরই দু’পক্ষের মধ্যে তর্কবিতর্ক শুরু হয়। এক পর্যায়ে এক পুলিশকর্মী যুবকের বাইকের চাবি খুলে নিয়ে আচমকাই তার কপালে সেটা গেঁথে দেন। গুরুতর জখম হন ওই যুবক। এ সময় তার কপাল থেকে গলগল করে রক্ত বের হতে থাকে।

স্থানীয়দের অভিযোগ, প্রথমে বিষয়টি কথা কাটাকাটির মধ্যে সীমিত ছিল। তার পরই এক পুলিশকর্মী যুবকটির কপালে চাবি গেঁথে দেন। পুলিশের এই ভূমিকায় স্থানীয়রা বেজায় চটেছেন।

এলাকাবাসী ঘটনাটির প্রতিবাদ করতে গেলে পুলিশ তাদের উপর চড়াও হয় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ সময় উত্তেজিত লোকজন পুলিশকে লক্ষ্য করে পাথর ছুড়তে শুরু করেন।তিন পুলিশকর্মীর এমন বর্বর আচরণে প্রচণ্ড সমালোচনার মুখে পড়েছে উত্তরাখণ্ড সিটি পুলিশ।

হেলমেট না পরা থাকলে ট্রাফিক নিয়ম মেনে যুবককে জরিমানা করতে পারতেন ওই পুলিশকর্মীরা। কিন্তু তা না করে এমন কাজ করলেন কেন তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই। অভিযুক্ত তিন পুলিশকর্মীকে সাসপেন্ড করেছে উত্তরাখণ্ড সিটি পুলিশ। কেন এমন ঘটনা ঘটল তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলেও জানিয়েছে পুলিশ।

Author: Faruk

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *