তরুণ বয়সে ভালো লাগা থেকে ফাঁদে ফেলে ৮০ বছর বয়সের নারীকে ধর্ষণ লম্পটের

চলতি মসের ২১ তারিখে থাইল্যান্ডের ফট্টালুং প্রদেশে ৮০ বছরের এক বৃদ্ধা ধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে খবর প্রকাশ করেছে দেশটির স্থানীয় গণমাধ্যম ন্যাশন থাইল্যান্ড। বর্তমানে তাকে বাড়িতে রেখেই চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তার শরীরে স্যালাইন পুশ করা হয়েছে।

ভুক্তভোগী স্থানীয় সাংবাদিকদের জানান, একদিন রাস্তায় তিনি স্থানীয় খাবার বিক্রি করছিলেন। এ সময় ৫০ বছর বয়সী এক ব্যক্তি তার কাছে আসেন। তারা দু’জন কথা বলেন। ওই নারী তার সঙ্গে মিষ্টি মিষ্টি কথা বলেন। একপর্যায়ে ওই বৃদ্ধা তাকে জানান, ওই নারী তাকে উঠতি বয়সেই (তরুণী বয়সে) নিজের প্রতি আকৃষ্ট করেন। তখন তারা একে অপরের প্রতিবেশী ছিলেন।

স্থানীয় গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়, অভিযুক্ত ওই নারীকে জানান, তিনি তার সব খাবার কিনতে যাচ্ছেন। তবে একটি শর্তও জুড়ে দেন তিনি। সব খাবার কেনার শর্ত ছিল ওই নারীকে অভিযুক্তের সঙ্গে এক আত্মীয়র বাড়িতে খাবার পৌঁছে দিতে যেতে হবে। তখন ওই নারী রাজি হয়ে যান। তার জন্য থাইল্যান্ডের স্থানীয় মুদ্রায় দু’হাজার বাথের বিনিময়ে তিনি রাজি হন।

খাবার নিয়ে যাওয়ার সময় অভিযুক্ত জনশূন্য রাস্তায় দিয়ে চলা শুরু করেন। এসময় ওই নারীর পার্স নিয়ে নেন অভিযুক্ত। হঠাৎ করেই তিনি একটি অর্ধনির্মিত বাড়ির সামনে গিয়ে দাঁড়ান। তারপর ওই নারী অভিযুক্তের মূল উদ্দেশ্য বুঝতে পারেন। এরপর পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু লাভ হয়নি।

এই ঘটনায় অভিযুক্তকে শিগগিরই গ্রেপ্তার করার দাবি জানিয়েছেন ভুক্তভোগীর আত্মীয়রা। স্থানীয় পুলিশ মঙ্গলবার জানিয়েছে, অভিযুক্তকে ধরতে প্রত্যক্ষদর্শীদের সঙ্গে আলোচনা করছে। এ ছাড়াও আরো তথ্যের জন্য সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করেছে পুলিশ।

Author: Faruk

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *