নবাবগঞ্জে বন্ধুর হাত-পা বেঁধে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণ

দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে বন্ধুর সাথে ঘুরতে গিয়ে স্থানীয় কয়েকজন বখাটে যুবকের দ্বারা ধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক কলেজছাত্রী (১৮)। এ ঘটনায় চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে আদালতের মাধ্যমে তাদের জেলা কারাগারে পাঠানো হয়।

গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলেন, শাহিনুর (৩০), নবাবগঞ্জ উপজেলার শুগুনখোলা গ্রামের বাসিন্দা আজিম (৩১), একই গ্রামের ইসমাইল হোসেনের ছেলে সাজেদুল ইসলাম সাজু (২১) ও শাহারুল ইসলাম (২০)।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, বখাটে যুবকরা কলেজছাত্রীর বন্ধুকে মারধর করে হাত-পা বেঁধে মোবাইল ও টাকা-পয়সা ছিনিয়ে নেয়। আর কলেজছাত্রীকে শালবনের ভেতরে তুলে নিয়ে ধর্ষণ করে। এ সময় ওই ছাত্রীর বন্ধু রিয়াজুল ইসলাম সেখান থেকে পালিয়ে ৯৯৯ নম্বরে ফোন দিয়ে পুলিশকে বিষয়টি জানান। এর পরেই নবাবগঞ্জ পুলিশ স্থানীয়দের সহায়তায় শালবনের ভেতর থেকে দুজনকে গ্রেপ্তার করে। পরে আরও দুজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

নবাবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অশোক কুমার চৌহান জানান, সোমবার বিকেলে নবাবগঞ্জের এইচএসসি পড়ুয়া বন্ধুর সাথে ঘুরতে যায় বিরামপুরের এক কলেজ ছাত্রী। এ সময় বখাটে শাহিনুরের নেতৃত্বে কয়েকজন যুবক ওই ছাত্রীর বন্ধুকে মারধর করে হাত-পা বেঁধে মোবাইল ও টাকা-পয়সা ছিনিয়ে নেয়। পরে ওই কলেজ ছাত্রীকে শালবনের ভেতরে নিয়ে ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর বন্ধু রিয়াজুল ইসলাম বাদী হয়ে সোমবার রাতে নবাবগঞ্জ থানায় একটি ছিনতাই ও ধর্ষণের মামলা করে।
37740cookie-checkনবাবগঞ্জে বন্ধুর হাত-পা বেঁধে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণ

Author: Faruk

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *