মোহনপুর ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুর রাজ্জাকের মুক্তির দাবীতে প্রতিবাদ সভা ও মানবন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক (২৬) ও তার বাবা ছলিম উদ্দীন সরদারকে মিথ্যা মামলায় হয়রানী এবং নিঃশর্ত মুক্তির দাবীতে মোহনপুর উপজেলা ছাত্রলীগ ও কেশরহাট পৌরসভা ছাত্রলীগের উদ্যোগে প্রতিবাদ সভা ও মানববন্ধন পালিত হয়েছে।

মঙ্গলবার বেলা ৫ টার দিকে কেশরহাট পৌরসভার এলাকায় প্রতিবাদ সভা ও মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।

কেশরহাট পৌরসভার ছাত্রলীগের সভাপতি মোমিনুল ইসলাম জীবনের সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক শাহীন আলম এর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সভা ও মানবন্ধনে বক্তব্য রাখেন,কেশর হাট পৌরসভা ছাত্রলীগের সভাপতি মমিনুল ইসলাম জীবন,সাধারন সম্পাদক শাহীন আলম,ঘাসিগ্রাম ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রকি,রায়ঘাটী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি শাহিনুর,জাহানাবাদ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি রানা হাসান বিদ্যুৎ সহ বিভিন্ন ইউনিট ছাত্রলীগের কর্মী

অপরদিকে মোহনপুর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক (২৬) ও তার বাবা ছলিম উদ্দীন সরদারকে মিথ্যা মামলায় হয়রানী এবং নিঃশর্ত মুক্তির দাবীতে বাগমারা উপজেলার ভবানীগঞ্জ সরকারী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রলীগের উদ্যোগে প্রতিবাদ সভা ও মানববন্ধন পালিত হয়েছে।

মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১০ টার দিকে ভবানীগঞ্জ জিরো পয়েন্টে এলাকায় প্রতিবাদ সভা ও মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়।

ভবানীগঞ্জ সরকারী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি নাদিরুজ্জামান মিলনের সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক আব্দুল মজিদের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সভা ও মানবন্ধনে বক্তব্য রাখেন, জেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সেজানুর রহমান সেজান, উপজেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি ইসমাইল হোসেন সান্টু, ছাত্রলীগ নেতা জেবাল আহম্মেদ, মেহেদী হাসান, সারোয়ার ইসলাম রাকিব, নাহিদুল ইসলাম নাহিদ, তিতাস আহম্মেদ, নাইমুর রহমান, মোস্তফা কামাল, নাজমুল ইসলাম, মোহন আহম্মেদ, আল আমিন, মীম হোসেন, আকাশুল ইসলাম আকাশ প্রমুখ।

উল্লেখ্য, ছাত্রলীগ সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক গত ৪ মে একই এলাকার প্রাপ্ত বয়স্ক এক মেয়েকে বিয়ে করায় অপরাধে মেয়ের পরিবার থেকে সাজানো অপহরন মামলা দিয়ে মোহনপুর থানার পুলিশ গত ৭ আগষ্ট তার পিতাসহ তাকে গ্রেপ্তার করে জেল হাজতে পাঠিয়ে দেয়। বক্তরা অবিলম্বে ছাত্রলীগ সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক ও তার বাবার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারসহ নিঃশর্ত মুক্তির দাবী জানান।

Author: Faruk

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *