যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের আরও ৪ কর্মকর্তা বরখাস্ত

যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের ৩ কিশোর খুন ও ১৫ জন আহতের ঘটনায় গ্রেফতার হওয়া আরও চার কর্মকর্তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।  রবিবার সমাজসেবা অধিদফতরের অফিস আদেশে তাদেরকে বরখাস্ত করা হয়।

বরখাস্তকৃতরা হলেন- কেন্দ্রের সহকারী তত্ত্বাবধায়ক (প্রবেশন অফিসার) মাসুম বিল্লাহ, ফিজিক্যাল ইন্সট্রাক্টর একেএম শাহানুর আলম, সাইকো সোস্যাল কাউন্সিলর মো. মুশফিকুর রহমান ও কারিগরি প্রশিক্ষক (ওয়েল্ডিং) ওমর ফারুক।

সোমবার সমাজসেবা অধিদফতরের ওয়েবসাইটে চার কর্মকর্তার বরখাস্তাদেশের চিঠি আপলোড করা হয়েছে। এর আগে ১৪ আগস্ট কেন্দ্রের তত্ত্বাবধায়ক (সহকারী পরিচালক) আব্দুল্লা আল মাসুদকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

গত ১৩ আগস্ট যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের কিশোর ‘বন্দীদের’ অমানসিক মারপিট করা হলে তিন কিশোর নিহত ও অন্তত ১৫ জন আহত হয়। এ ঘটনায় ১৪ আগস্ট রাতে নিহত কিশোর পারভেজ হাসান রাব্বির বাবা রোকা মিয়া যশোর কোতয়ালি থানায় হত্যা মামলা করেন। মামলায় যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের কর্তৃপক্ষকে আসামি করা হয়।

পুলিশ এ মামলায় কেন্দ্রের সহকারী পরিচালকসহ পাঁচ কর্মকর্তা-কর্মচারীকে গ্রেফতার করে। শনিবার তাদের আদালতে সোপর্দ করা হয়। শুনানি শেষে যশোরের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মাহাদী হাসান কেন্দ্রের তত্ত্বাবধায়ক (সহকারী পরিচালক) আব্দুল্লা আল মাসুদ, সহকারী তত্ত্বাবধায়ক (প্রবেশন অফিসার) মাসুম বিল্লাহ, ফিজিক্যাল ইন্সট্রাক্টর একেএম শাহানুর আলমকে পাঁচদিনের ও সাইকো সোস্যাল কাউন্সিলর মো. মুশফিকুর রহমান ও কারিগরি প্রশিক্ষক (ওয়েল্ডিং) ওমর ফারুকের তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। সোমবার মুশফিকুর রহমান এবং ওমর ফারুকের রিমান্ড শেষ হয়েছে। আজ (মঙ্গলবার) দুইজনকে আদালতে হাজির করা হবে বলে জানিয়েছেন তদন্ত কর্মকর্তা রকিবুজ্জামান।

তদন্ত কর্মকর্তা রকিবুজ্জামান বলেন, আদালতে রবিবার সাতজন ও সোমবার একজনের শোন অ্যারেস্টের আবেদন করেছিলাম। শুনানি শেষে আদালত আবেদন মঞ্জুর করেছেন। এরপর ওই আটজনের রিমান্ড আবেদন করা হবে। আদালত রিমান্ড মঞ্জুর করলে তিন কিশোর খুনের মামলায় তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

তিনি আরও জানান, শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের দুই কর্মকর্তার রিমান্ডের মেয়াদ শেষ হচ্ছে সোমবার। মঙ্গলবার তাদের আদালতে হাজির করা হবে।

55540cookie-checkযশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের আরও ৪ কর্মকর্তা বরখাস্ত

Author: Faruk

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *