মানবিক সহায়তাকর্মীদের ওপর হামলার নিন্দা জানিয়েছে জাতিসংঘ

জাতিসংঘ বুধবার বিশ্ব মানবিক সহায়তা দিবসে কোভিড -১৯ মহামারির সঙ্গে বর্তমানে লড়াইরত মানবিক সহায়তাকর্মীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেছে, এক বছর আগের চেয়ে তারা আরো বেশী আক্রমনের শিকার হয়েছেন।

২০১৯ সালে মানবিক সহায়তা কার্যক্রমে হত্যার শিকার ১২৫ জন কর্মীর স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছে এবং এ সময় কয়েক’শ কর্মী আহত অথবা অপহৃত হয়েছে।

জাতিসংঘ অফিস ফর দ্য কোঅর্ডিনেশন অব হিউম্যানিটারিয়ান এফেয়ার্স (ওসিএইচএ) বলেছে,“জাতিসংঘ এই হামলার নিন্দা জানায় এবং বেঁচে থাকা কর্মীদের জন্য অপরাধীদের জবাবদিহি ও বিচারের আওতায় আনার আহবান জানিয়েছে।” এতে বলা হয়, ত্রাণকর্মীরা কখনো হামলার লক্ষ্য হতে পারে না।

জেনেভায় জাতিসংঘের দফতরে এই স্মরণ অনুষ্ঠানে জাতিসংঘ মানবাধিকার প্রধান মিশেল বাশেলেত উপস্থিত ছিলেন।

২০১৯ সালে পৃথক ঘটনায় বিশ্বব্যাপী ৪৮৩ জন ত্রাণকর্মী হামলার শিকার হয়েছেন, এদের মধ্যে ১২৫ জনের মৃত্যু হয়েছে ,২৩৪ জন আহত এবং ১২৪ জন অপহৃত হয়েছেন।

২০১৮ সালের তুলনায় এই সংখ্যা ১৮ শতাংশ বেশী। এদের বেশীর ভাগ আক্রমনের শিকার হয়েছে সিরিয়ায়, এরপরে রয়েছে দক্ষিণ সুদান, কঙ্গো, আফগানিস্তান ও মধ্য আফ্রিকান প্রজাতন্ত্র।

জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস বলেছেন, “এই বছর মানবিক সহায়তা কর্মীরা যে প্রতিকূলতার মুখোমুখি হয়েছেন, আগে এমনটা হয়নি।”

“কোভিড -১৯ বৈশ্বিক মহামারির সংকট মোকবেলায় তারা নিয়োজিত ছিলেন এবং এ কারণে মানবিক সহায়তার চাহিদা ব্যাপক বৃদ্ধি পায়।”

“মহামারি মোকাবিলায় এবং মানুষের জীবন বাঁচাতে নিজেদের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সেবা দিয়ে গেছেন।”

নাইজারে গত ৯ আগস্ট দাবানলে ফ্রান্সের ৬ সহায়তাকর্মী মারা গেছেন।

মঙ্গলবার রেডক্রস বলেছে, কোভিড – ১৯ সংকটকালে তাদের ৬০ জনের বেশী স্বাস্থ্যকর্মী আক্রমনের শিকার হয়েছেন।

২০০৩ সালের ১৯ আগস্ট বাগদাদে জাতিসংঘ অফিস চত্বরে হামলায় ২২ জনের নিহত হওয়ার পর থেকে এই মানবিক সহায়তা দিবস পালিত হয়ে আসছে। সূত্র: বাসস

57800cookie-checkমানবিক সহায়তাকর্মীদের ওপর হামলার নিন্দা জানিয়েছে জাতিসংঘ

Author: Faruk

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *