হাসপাতালেই বিয়ে করলেন করোনা রোগী

জুলাইয়ের মাঝামাঝি সময়ে বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার কথা ছিল যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসের যুগল কার্লোস মুনিজ এবং গ্রেস লেম্যানের। কিন্তু মুনিজ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় তাদের বিয়ের পরিকল্পনা ভেস্তে যায়। হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর তার অবস্থার কোনো উন্নতিই হচ্ছিল না, একসময় তিনি আইসিইউতে চলে যান।

এমন পরিস্থিতিতে স্বাভাবিকভাবে বিয়ের কথা হয়তো কেউ চিন্তা করবে না। কিন্তু এই অসম্ভব বিষয়টি সম্ভব করেছেন মুনিজ-গ্রেস দম্পতি। গত ১১ আগস্ট এই দম্পতি সামাজিক দূরত্ব মেনে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সেরে ফেলেন বলে খবর প্রকাশ করেছে সিএনএন।

কার্লোসের মানসিক প্রশান্তি বৃদ্ধির জন্য তাকে বিয়ে করে ফেলার পরামর্শ দেন হাসপাতালের এক নার্স। বিয়ের আনুষ্ঠানিকতার সব দায়িত্বও নিজেদের কাঁধে তুলে নেন হাসপাতালের কর্মীরা। স্বাভাবিক পরিস্থিতিতে যেভাবে বিয়ে হওয়ার ছিল, সেভাবে না হলেও যতটা সম্ভব আয়োজন করেন হাসপাতাল কর্মীরা।

পরে চিকিৎসকের অনুমতি নিয়ে হাসপাতালে কনে সেজে হাজির হয়েছিলেন গ্রেস। সেখানেই বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়। এসময় স্বাস্থ্যবিধি মেনে নব দম্পতিকে শুভেচ্ছা জানান হাসপাতালের কর্মীরা।

করোনার আক্রমণে মুনিজের ফুসফুস ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। হাসপাতালের ওই নার্স বলেন, আমি যখন মুনিজকে বিয়ের পরামর্শ দিই, তখন এটি থেরাপির অংশ হিসেবেই দিয়েছিলাম। যাতে করে সে ভালো অনুভব করে এবং মানসিক শক্তি পায়।

তিনি জানান, শারীরিক অবস্থার অবনতির সময় গ্রেস সার্বক্ষণিক মুনিজের পাশে ছিলেন, তাকে সাহস যুগিয়েছেন।

57870cookie-checkহাসপাতালেই বিয়ে করলেন করোনা রোগী

Author: Faruk

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *