আদালতে আদেশ শোনার পর কান্নায় ভেঙে পড়েন ডা. সাবরিনা

আদালতে দাঁড়িয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন জেকেজি হেলথকেয়ারের চেয়ারম্যান ডা. সাবরিনা চৌধুরী। করোনার ভুয়া রিপোর্ট দেওয়ার অভিযোগে তার বিরুদ্ধে প্রতারণার মামলা হয়। সে মামলার অভিযোগ গঠন শুনানির আদেশ দেওয়ার পর তিনি কান্নায় ভেঙে পড়েন।

বৃহস্পতিবার ঢাকা মহানগর হাকিম সরাফুজ্জামান আনছারীর আদালত সাবরিনাসহ আট আসামির অব্যাহতির আবেদন নাকচ করা হয়। আদালত তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের এই আদেশ দেন। এ সময় তাঁদের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য গ্রহণের জন্য পরবর্তী ২৭ আগস্ট দিন ধার্য করেন আদালত।

এ মামলায় অন্য আসামিরা হলেন জেকেজি হেলথকেয়ারের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) আরিফুল হক চৌধুরী, আবু সাঈদ চৌধুরী, হুমায়ূন কবির হিমু, তানজিলা পাটোয়ারী, বিপ্লব দাস, শফিকুল ইসলাম রোমিও ও জেবুন্নেসা।

এর আগে গত ১৩ জুলাই সাবরিনাকে আদালতে হাজির করে চারদিনের রিমান্ড চেয়েছিল পুলিশ। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম শাহিনুর রহমান তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। ১২ জুলাই দুপুরে সাবরিনাকে তেজগাঁও বিভাগীয় উপ-পুলিশ (ডিসি) কার্যালয়ে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাকে করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষা না করেই রিপোর্ট ডেলিভারি দেয়ার অভিযোগে তেজগাঁও থানায় করা মামলায় গ্রেফতার করে পুলিশ।

61480cookie-checkআদালতে আদেশ শোনার পর কান্নায় ভেঙে পড়েন ডা. সাবরিনা

Author: Faruk

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *