স্বামী নিভালেন বাতি, দেবর করলেন ধর্ষণ

বড় ভাইয়ের উপস্থিতিতে তার স্ত্রীকে (২৪) ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে আপন দেবরের বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার (১৮ আগস্ট) দিবাগত রাত ৯টার দিকে নাটোরের গুরুদাসপুর উপজলার গোপীনাথপুর গ্রামে ওই ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় দেবর আব্দুল বারেক ও স্বামী আব্দুল মালেককে রাতেই গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

এ ঘটনায় ধর্ষণের শিকার ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে স্বামী মালেক ও দেবর বারেককে অভিযুক্ত করে গুরুদাসপুর থানায় ধর্ষণ মামলা করেছেন। বুধবার (১৯ আগস্ট) সকালে গুরুদাসপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমেপ্লেক্সে ডাক্তারি পরীক্ষা করা হয়েছে। দুপুরে অভিযুক্ত ওই দুইজনকে আদালতের মাধ্যমে নাটোর জেল-হাজতে পাঠানো হয়। গৃহবধূ অভিযোগ করেন, বেশ কিছুদিন ধরে দেবর বারেক তাকে কুপ্রস্তাব দিচ্ছিলেন। স্বামীকে বলার পরেও কোনো ব্যবস্থা না নিয়ে বরং তাকে দোষারোপ করছিলেন। সামাজিকতার ভয়ে বিষয়টি কাউকে জানাননি। গেল মঙ্গলবার রাতে বাড়ির বারান্দায় মাছ কাটছিলেন গৃহবধূ। সে সময় স্বামীও বাড়িতেই ছিলেন। তিনি জানান, হঠাৎ দেবর বারেক বারান্দায় আসেন। এ সময় স্বামী মালেক বৈদ্যুতিক বাতি নিভিয়ে তাকে শয়ন ঘরে ডাকেন। পরে সেখানে দেবর এসে ধর্ষণ করেন। দুজনেরই বিচার দাবি করেছেন। নাজিরপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শওকত রানা লাবু ঘটনার সতত্য নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনার পর পরই পুলিশকে খবর দেয়া হয়।

61820cookie-checkস্বামী নিভালেন বাতি, দেবর করলেন ধর্ষণ

Author: Faruk

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *