রাতেই দেশে ফিরছেন রায়হান কবির

আল-জাজিরায় সাক্ষাৎকার দেওয়ায় মালয়েশিয়ার পুলিশের কাছে আটক হওয়া বাংলাদেশি নাগরিক রায়হান কবির দেশে ফিরছেন। তাকে আটকের পর তার বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ গঠন করেনি দেশটির পুলিশ।

শুক্রবার রাতে তাকে দেশে ফেরত পাঠাচ্ছে দেশটির অভিবাসন বিভাগ। রায়হানের ফেরত আসার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তার আইনজীবী সুমিতা শান্তিনি কিষনা এবং ব্র্যাক মাইগ্রেশন প্রোগ্রামের প্রধান শরিফুল হাসান।

রায়হানের আইনজীবী সুমিতা শান্তিনি কিষনা বলেন, ‘শুক্রবার রাতে পুত্রজায়া ইমিগ্রেশন অফিস থেকে রায়হানকে সরাসরি বিমানবন্দরে নেওয়া হবে। সব প্রক্রিয়া শেষ করে মালয়েশিয়ার স্থানীয় সময় রাত ১১টায় তাকে বিমানে তোলা হবে। এর আগে, করোনার পরীক্ষায় তার নেগেটিভ প্রতিবেদন আসে। যেহেতু রায়হানের বিরুদ্ধে মালয়েশিয়া পুলিশ কোনো অভিযোগ আনেনি, কাজেই তাকে কোনো আইনি ঝামেলায় পড়তে হবে না।’

মালয়েশিয়ার ইমিগ্রেশন বিভাগের মহাপরিচালক খায়রুল দিজাইমি দাউদ সেদেশের সাংবাদিকদের জানান, দেশে পাঠানোর জন্য শুক্রবার রাত ৯টায় রায়হানকে বিমানবন্দরে নেওয়া হবে।

প্রসঙ্গত, করোনা ভাইরাস মহামারীর মধ্যে অভিবাসী শ্রমিকদের প্রতি মালয়েশিয়া সরকারের আচরণের সমালোচনা করে আল-জাজিরার তথ্যচিত্রে দেওয়া সাক্ষাৎকার প্রকাশের পর গত ২৪ জুলাই রায়হানকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গত ৩ জুলাই আল জাজিরা টেলিভিশনে সম্প্রচারিত ওই প্রামাণ্য প্রতিবেদনে মহামারীর মধ্যে অবৈধ অভিবাসী শ্রমিকদের চিকিৎসা সেবা দেওয়ার বিষয়ে সরকারের কর্মকাণ্ডের সমালোচনা করে বক্তব্য দেন রায়হান কবির।

আল জাজিরাকে তিনি বলেন, মহামারীর মধ্যে অবৈধ শ্রমিকদের আটক ও জেলে পাঠানোর মাধ্যমে মালয়েশিয়া সরকার বৈষম্যমূলক আচরণ করছে। এটা কোনো মানবিক আচরণ হতে পারে না।

তবে দেশটির সরকারের কর্মকর্তারা আল জাজিরার ওই খবর ‘ভুল, বিভ্রান্তিকর এবং অন্যায্য’ বলে দাবি করেন। ওই প্রতিবেদন সম্প্রচারের পর দেশটিতে ক্ষোভের সঞ্চার হলে রায়হানের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করা হয়।

Author: Faruk

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *