আবাসিক হোটেলে স্ত্রীর সাথে স্বামীর কাণ্ড

নরসিংদীর একটি আবাসিক হোটেলে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন হয়েছেন। শনিবার (২২ আগস্ট) দুপুর ১টার দিকে শহরের সদর রোডের আল মামুন হোটেলে এ ঘটনা ঘটে।

পারিবারিক কলহ ও পরকীয়ার জের ধরে এ হত্যাকাণ্ড ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় নিহত রেশমা আক্তারের (২৫) স্বামী সামসুল হককে আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, দুপুর ১২টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার রহমান বাড়ির সামসুল হক তার স্ত্রী রেশমাকে নিয়ে সদর রোড এলাকার আল মামুন হোটেলে ওঠেন। দুপুর ১টার দিকে রুমের ভেতর থেকে চিৎকার ও ধস্তাধস্তির শব্দ পাওয়া যায়। পরে হোটেলের লোকজন এগিয়ে গেলেও দরজা খোলেননি তারা। অবস্থা বেগতিক দেখে হোটেল কর্তৃপক্ষ পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে হোটেলের ভেতর থেকে রক্তাক্ত অবস্থায় রেশমাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে পাঠায়। সেখানে নেয়ার পর কতর্ব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ সময় নিহতের স্বামী সামসুল হককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

স্থানীয় একটি সূত্রে জানা গেছে, কয়েক দিন পরপরই রেশমা তার প্রেমিককে নিয়ে বিভিন্ন হোটেলে সময় কাটাতেন। বিষয়টি তার স্বামীর চোখে কাছে ধরা পড়ে। এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কলহ চলছিল। এর জের ধরে পরিকল্পিতভাবে তাকে হত্যা করা হয়েছে।

নরসিংদী সদর মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিপ্লব কুমার দত্ত বলেন, ধারণা করা হচ্ছে পারিবারিক কলহের জের ধরে এ হত্যার ঘটনা ঘটেছে। ঘটনাস্থল থেকে স্বামী সামসুল হককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদ ও তদন্তের পর ঘটনার বিস্তারিত জানা যাবে।

Author: Faruk

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *