নিহতের ৩৬ দিন পর কবর থেকে কলেজ ছাত্রের লাশ উত্তোলন

কুমিল্লায় মাঈনুদ্দিন (মহিন) নামে এক কলেজ ছাত্রের মৃত্যুর রহস্য উদঘাটনে ৩৬ দিন পর কবর থেকে লাশ উত্তোলন করা হয়েছে। আদালতের নির্দেশে ময়নাতদন্তের জন্য রবিবার (২৩ আগষ্ট) তার লাশ উত্তোলন করা হয়।

এসময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন দায়িত্বপ্রাপ্ত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবু বকর সরকার। দেবীদ্বার উপজেলার রাজামেহার ইউনিয়নের চুনিলাশ গ্রামের মাউদ আলীর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

গত ১৮ জুলাই মাঈনের মৃত্যুর পর ২৬ জুলাই তার বোন আয়েশা আক্তার বাদী হয়ে ৮ জনের নামে হত্যা মামলা দায়ের করেন। গত ২৯ জুলাই রাত সাড়ে ৮টায় মামলাটি দেবীদ্বার থানায় নথিভূক্ত করা হয় এবং মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয় দেবীদ্বার থানার উপপরিদর্শক আব্দুস সালামকে।

তিনি তদন্তের প্রয়োজনে তার পারিবারিক কবরস্থান হতে লাশ উওোলন পূর্বক সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি ও ময়নাতদন্তের জন্য গত ৩০ জুলাই কুমিল্লা ৪ নম্বর আমলী আদালতের চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রের নিকট আবেদন করেন। আদালত আবেদন মন্জুর করে গত ১৬ আগস্ট নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আবু বকর সরকারকে ভিক্টিমের লাশ কবর থেকে উত্তোলনের দায়িত্ব দেন।

রবিবার দুপুরে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আবু বকর সরকারের নেতৃত্বে মহিনের লাশ কবর থেকে উত্তোলন ও সুরত হাল রিপোর্ট তৈরি পূর্বক ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতল মর্গে প্রেরণ করা হয়। মামলা তদন্তকারী কর্মকর্তা দেবীদ্বার থানার উপপরিদর্শক আব্দুস সালাম জানান, তদন্ত চলছে, ময়নাতদন্তের রিপোর্ট প্রাপ্তির পরই বলা যাবে ঘটনাটি হত্যা না আত্মহত্যা।

70310cookie-checkনিহতের ৩৬ দিন পর কবর থেকে কলেজ ছাত্রের লাশ উত্তোলন

Author: Faruk

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *