স্বামী জীবিত, স্ত্রী নিচ্ছেন বিধবা ভাতা!

জীবিত স্বামীকে মৃত দেখিয়ে বিধবা ভাতা উত্তোলনের অভিযোগ উঠেছে সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলার মনসুরনগর ইউনিয়নের একাধিক নারীর বিরুদ্ধে।

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য ও সমাজসেবা অফিসারের সহায়তায় দীর্ঘদিন ধরেই তারা ভাতা উত্তোলন করে আসছিলেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

এরই মধ্যে অভিযুক্তদের ভাতা বই জব্দ করেছে উপজেলা প্রশাসন।

জব্দ হওয়া বইয়ে পাওয়া তথ্যে জানা যায়, মনসুর নগর ইউনিয়নের দুই নম্বর ওয়ার্ডের শালদহ গ্রামের সহিদ আলীর স্ত্রী রহিতন (বিধবা ভাতা বই নং-১১, ব্যাংক হিসাব নং-৬২), একই গ্রামের আব্দুর রশিদের স্ত্রী খোদেজা (বই নং- ৬৩২, হিসাব নং- ৩০৫), শাহজাহান আলীর স্ত্রী কাজলী খাতুন (বই নং-২১০৭ , হিসাব নং- ৩০৭), ইয়াকুব আলীর স্ত্রী ছবিরন ওরফে কদভানু (বই নং- ১৪, হিসাব নং-৩০৯) ও আমজাদ হোসেনের স্ত্রী শেফালী খাতুন (বই নং- ২১১০, হিসাব নং-৩০১) দীর্ঘদিন ধরে বিধবা ভাতা উত্তোলন করে আসছেন। অথচ এ পাঁচ নারীর স্বামী এখনও জীবিত।

রোববার (২৩ আগস্ট) বিকেলে কাজিপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাহিদ হাসান সিদ্দিকী এসব তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, সম্প্রতি মনসুরনগর ইউনিয়নের দুই নং ওয়ার্ডের পাঁচ নারীর বিধবা ভাতার কার্ড জব্দ করে জমা দিয়েছেন ওই ইউনিয়নের গ্রাম পুলিশ। তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণ হয়েছে। এছাড়া ওই ইউনিয়নের সাত নং ওয়ার্ডের শালগ্রাম এলাকার হাওয়া বেগম, ছানোয়ারা খাতুন ও কোহিনুর নামে আরও তিন নারীর কার্ড জব্দ করা হয়েছে। আরও ২০টির মতো ভাতাবই জব্দের প্রস্তুতি চলছে।

এদিকে স্থানীয় সমাজসেবা অফিসারের সঙ্গে যোগসাজশ করে এ ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য নাজমা বেগম এসব বই তৈরি করেছেন বলে অভিযোগ করেছেন স্থানীয়রা। এছাড়া অর্থের বিনিময়ে এসব অবৈধভাবে ভাতাকার্ড তৈরি ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ রয়েছে নাজমা বেগমের বিরুদ্ধে।

তবে নাজমা বেগম এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমার সময়ে এ রকম কোনো ঘটনা ঘটেনি। অভিযুক্ত বইগুলো আমি দায়িত্ব নেওয়ার আগে তৈরি হয়েছে।

কাজিপুর উপজেলা সমাজসেবা অফিসার মোহাম্মদ আলাউদ্দিন বলেন, ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যরা আমাদের অফিসে যেসব তথ্য দেন, আমরা সেটার ভিত্তিতে কাজ করি। তবে এখন থেকে এসব আর হবে না। অনলাইন হচ্ছে। এমনিতেই সব বাতিল হয়ে যাবে।

জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক তৌহিদুল আলম বলেন, আমি এখন ছুটিতে রয়েছি। বিষয়টি আমার জানা নেই। এ ঘটনা সত্য হলে অভিযুক্তদের ভাতা বাতিল করা হবে এবং তদন্ত কমিটির মাধ্যমে প্রতিবেদন তৈরি করে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সূত্র :বাংলানিউজ।

70340cookie-checkস্বামী জীবিত, স্ত্রী নিচ্ছেন বিধবা ভাতা!

Author: Faruk

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *