সাপাহারে সড়কের মরা গাছ টেন্ডারেরর নামে তাজা গাছ কেটে সাবাড়

নিখিল বর্মন,সাপাহার (নওগাঁ) প্রতিনিধি:

নওগাঁর সাপাহারে বরেন্দ্র উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সরকারী রাস্তায় রোপিত মরা গাছ টেন্ডার নিয়ে রাস্তার জিবীত গাছ কেটে সাবাড় করেছে এক গাছ খেকো ঠিকাদার। সংবাদ পেয়ে বৃহস্পতিবার সকাল ৯’টার দিকে ঘটনা স্থলে পৌঁছে ওই ঠিকাদারকে আটক করেছে পুলিশ।

জানা গেছে সাপাহার উপজেলার মফস্বল গ্রামীন পাকা রাস্তা কোচকুড়লিয়া মোড় হতে নিশ্চিন্তপুর মোড় পর্যন্ত প্রায় ৩কিলো রাস্তার উভয় পর্শ্বে  অবস্থিত আকাশমণি, শিশু সহ বিভিন্ন ধরণের ১৫৬টি মৃত গাছ ১লক্ষ ১৭হাজার ১শ টাকায় সাপাহার বরেন্দ্র উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ কর্তৃক টেন্ডার দিলে সাপাহারে অবস্থিত উত্তরা স”মিল এর সত্বাধিকারী মো: আবুল কালাম আজাদ শুধু মৃত গাছগুলিকে কেটে নেয়ার জন্য টেন্ডার পায়।

এর পর হতে শুরু হয় ওই ঠিকাদারের গাছ কাটা অভিযান কিন্তু চতুর ঠিকাদার আবুল কালাম আজাদ তার কর্মচারীদের কে দিয়ে মরা গাছের পাশা পাশী বেশ কিছু জিবীত গাছও কেটে  সাবাড় করে ফেলে। মরা গাছের পাশা পাশী জিবীত গাছ কাটতে দেখে এলাকার লোকজনের সন্দেহ হয়।

তারা বিষয়টি চ্যালেঞ্জ করে স্থানীয় থানায় সংবাদ দেয়। সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনা স্থলে পৌঁছে ঠিকাদার আবুল কালাম আজাদকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। এবিষয়ে  সাপাহার বরেন্দ্র উন্নয়ন কতৃপক্ষে সহকারী প্রকৌশলী রেজাউল ইসলাম এর সাথে কথা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন এবং বলেন যে আমরা তাকে শুধু মৃত গাছ কাটার টেন্ডার দিয়েছি। ঠিকাদারের সুবিধার্থে প্রতিটি গাছে রং দিয়ে নাম্বারিং করা হয়েছে অথচ সে মৃত গাছের পাশা পাশী জিবীত গাছও কেটেছে।

রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত সাপাহার বরেন্দ্র উন্নয় কর্র্র্তৃপক্ষ কর্তৃক থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছিল।

Author: Faruk

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *