স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক আবুল কালাম আজাদের পদত্যাগ।

দেশে করোনাভাইরাস মোকাবিলায় স্বাস্থ্যখাতে নানা দুর্নীতি নিয়ে নানা আলোচনা-সমালোচনার মধ্যে পদত্যাগ করলেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক আবুল কালাম আজাদ। মঙ্গলবার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে গিয়ে জনপ্রশাসন সচিবের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দেন তিনি। রিজেন্ট হাসপাতালের সঙ্গে স্বাস্থ্য অধিদফতর চুক্তি নিয়ে সমালোচনার ঝড় ওঠে দেশ জুড়ে। এরপর ১৫ জুলাই ডা. আবুল কালাম আজাদ তার লিখিত বক্তব্যে জানান, তৎকালীন স্বাস্থ্য সচিব আসাদুল ইসলামের মৌখিক নির্দেশে রিজেন্ট হাসপাতালের সাথে চুক্তি করা হয়। রিজেন্ট ইস্যুতে মন্ত্রণালয়ের শোকজ নোটিসের জবাবে এ কথা জানান মহাপরিচালক। তবে, তৎকালীন স্বাস্থ্য সচিব আসাদুল ইসলাম দাবি করেন, রিজেন্ট হাসপাতালের সঙ্গে চুক্তি করতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরকে কোনো মৌখিক নির্দেশ দেয়া হয়নি। অধ্যাপক ডা. দ্বীন মোহাম্মদ নুরুল হক অবসরে যাওয়ার পর স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছিলেন অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালকের দায়িত্ব পাওয়ার পর তার মেয়াদ শেষ হয়ে গেলে তাকে আবার দুই বছরের জন্য চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দেয়া হয়। চুক্তির মেয়াদ হওয়ার এক বছর আগেই পদত্যাগ করলেন তিনি।

8550cookie-checkস্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক আবুল কালাম আজাদের পদত্যাগ।

Author: Faruk

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *